পরীক্ষা মূলক আপডেট

বন্যপ্রাণী পাচার-হত্যার তথ্য দিলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময়: বুধবার, নভেম্বর ১১, ২০২০
  • 28 পাঠক
বন্যপ্রাণী পাচার-হত্যার তথ্য দিলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার
বন্যপ্রাণী পাচার-হত্যার তথ্য দিলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার

বন্যপ্রাণী রক্ষায় পাচার কিংবা হত্যার তথ্য প্রদানকারীকে পুরস্কার দিতে ‘বন্যপ্রাণী সংক্রান্ত অপরাধ উদঘাটনে (তথ্য প্রদানকারী) পুরস্কার প্রদান বিধিমালা, ২০২০’ জারি করেছে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়। সর্বোচ্চ পুরস্কার ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার পাবেন তথ্য প্রদানকারী।

অপরাধে জড়িত ব্যক্তি বা বন্যপ্রাণীসহ কোনো ব্যক্তি বনাঞ্চলের ভেতরে ও বাইরে ধরার ক্ষেত্রে তথ্য দিলে পুরস্কার পাওয়া যাবে। অপরদিকে বাঘ, কুমির বা হাতি, হরিণ, কচ্ছপ বা সাপ এবং পাখি বা অন্যান্য বন্যপ্রাণীর বিষয়ে তথ্য দেওয়ার ক্ষেত্রে পুরস্কার দেওয়া হবে।

বাঘের ক্ষেত্রে অপরাধে জড়িত ব্যক্তি বা বাঘসহ কোনো ব্যক্তিকে বনাঞ্চলের ভেতরে ধরার ক্ষেত্রে তথ্যের জন্য ৫০ হাজার টাকা, বনাঞ্চলের বাইরের তথ্যের জন্য ২৫ হাজার টাকা পুরস্কার পাবেন তথ্য প্রদানকারী।
কুমির ও হাতির ক্ষেত্রে আসামি ও প্রাণীসহ বনাঞ্চলের অভ্যন্তরে তথ্যের জন্য ৩০ হাজার টাকা, আসামি ও প্রাণীসহ বনাঞ্চলের বাইরে ১৫ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে।

হরিণের ক্ষেত্রে বনের ভেতরে অপরাধ উদঘাটনের তথ্য দেওয়ার ক্ষেত্রে ২০ হাজার টাকা এবং বনের বাইরে ১০ হাজার টাকা এবং কচ্ছপ বা সাপের তথ্য দিলে দুটি ক্ষেত্রে যথাক্রমে ১৫ হাজার টাকা ও ১০ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

পাখি ও অন্যান্য বন্যপ্রাণীর ক্ষেত্রে বনের ভেতরে অপরাধ উদঘাটনে তথ্য দিয়ে ১০ হাজার টাকা ও বনের বাইরে তথ্যের জন্য আট হাজার টাকা মিলবে।

বিধিমালায় বলা হয়, পুরস্কার দিতে প্রধান বন সংরক্ষকের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হবে। কমিটি আর্থিক পুরস্কারের জন্য প্রস্তুত করা তালিকা পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত দেবে। আর্থিক পুরস্কারের পরিমাণও নির্ধারণ করে দেবে এই কমিটি।

তবে বন্যপ্রাণী সংক্রান্ত অপরাধের তথ্য আগে প্রকাশিত হলে, কোনো তথ্য বেনামে দেওয়া হলে, তথ্য প্রদানকারী নিজেই অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকলে এবং অন্য কোনো বৈধ কারণ থাকলে তথ্য দেওয়া ব্যক্তি আর্থিক পুরস্কারের জন্য অযোগ্য বিবেচিত হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *