পরীক্ষা মূলক আপডেট
সর্বশেষ আপডেট:
কিশোরগঞ্জে স্কুলছাত্র হত্যায় এক জনের ফাঁসি জিয়াউর রহমান বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে বিএনপির বিক্ষোভ ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত বাক-স্বাধীনতার মধ্যে পড়ে না : এরদোয়ান শাসন দীর্ঘায়িত করার ইচ্ছা সরকারের নেই: ওবায়দুল কাদের করোনার প্রকোপ কমে যাওয়া দেশগুলোকে সতর্ক থাকতে হবে: ডব্লিউএইচও ফিলিপসের রেকর্ড সেঞ্চুরি, ক্যারিবীয়দের হারাল কিউইরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেল সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামে ২২১ ভরি স্বর্ণসহ চোরাচালান চক্রের সদস্য গ্রেফতার পেনসিলভ্যানিয়ার আপিল আদালতেও হেরে গেলেন ট্রাম্প পাটজাত পণ্যের রপ্তানি বাড়ানো হবে: টিপু মুনশি

সাইবার অপরাধের শিকার নারীদের জন্য পুলিশের পৃথক ইউনিট, হটলাইন

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময়: সোমবার, নভেম্বর ১৬, ২০২০
  • 16 পাঠক
সাইবার অপরাধের শিকার নারীদের জন্য পুলিশের পৃথক ইউনিট, হটলাইন
সাইবার অপরাধের শিকার নারীদের জন্য পুলিশের পৃথক ইউনিট, হটলাইন

নানা ভাবে সাইবার অপরাধের শিকার নারীদের সহায়তার জন্য ‘সাইবার সাপোর্ট ফর উইমেন’ সেবা চালু করেছে পুলিশ। সোমবার (১৬ নভেম্বর) রাজারবাগ পুলিশ লাইনস অডিটোরিয়ামে এই সেবার উদ্বোধন করেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

পুলিশ জানায়, সাইবার জগতে সংঘটিত নারীর প্রতি হয়রানিমূলক অপরাধের অভিযোগ গ্রহণ ও প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও আইনি সহায়তা দেয়ার লক্ষ্যে পুলিশ সাইবার সাপোর্ট ফর উইমেন (Police Cyber Support for Women – PCSW) নামে ফেসবুক পেজ, ইমেইল আইডি ও হটলাইন নম্বর (০১৩২০০০০৮৮৮) চালু করেছে পুলিশ সদর দফতর।

যেসব নারীরা সাইবার বুলিং, আইডি হ্যাক, স্পর্শকাতর তথ্য-ছবি-ভিডিও প্রকাশ, সাইবার জগতে যৌন হয়রানি ইত্যাদির শিকার হচ্ছেন তারাই এখানে অভিযোগ জানাতে পারবেন। সম্পূর্ণ নিরাপত্তার বজায় রেখে এবং ভুক্তভোগীর তথ্য গোপন রেখে প্রয়োজনীয় সেবা ও আইনি সহায়তা দেবে পুলিশ সদর দফতর।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘সাইবার ক্রাইম একটি বাউন্ডারিলেস ক্রাইম। সাধারণত দেশে ১৬ থেকে ২৪ বছরের নারীরা এই অপরাধে সবচেয়ে বেশি ভিকটিম হয়। সাইবার জগতের ৬৮ শতাংশ নারী সাইবার অপরাধের শিকার হন। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ও সাইবার স্পেস নিরাপদ রাখতে আমাদের এই উদ্যোগ। আমাদের এই ইউনিট এর বিশেষত্ব হলো এখানে যারা সেবা দেবেন, তদন্ত করবেন, তারা সবাই পুলিশের নারী সদস্য। যেখানে ভিকটিমরা নির্দ্বিধায় তাদের সমস্যাগুলো বলতে পারবেন।’

আইজিপি আরও বলেন, ‘কোন ভিকটিম চাইলে দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে ৯৯৯ এর মাধ্যমে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারবেন। আমরা চাইবো, আজকে এটি উদ্বোধন হওয়ার পর থেকে যারা চাইবেন তারা যেন আমাদের থেকে সেবা নেন। আমরা সাইবার ওয়ার্ল্ডকে নিরাপদ করতে চাই।’

Please Share This Post in Your Social Media

এ বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *