মানবাধিকার কর্মী মুনাকে ছেড়ে দিলো ইসরায়েলি পুলিশ

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৭ জুন, ২০২১
  • ২৪ Time View

এবার দুই মানবাধিকার কর্মীকে গ্রেপ্তারের ঘটনা নিয়ে এবার অগ্নিগর্ভ ইসরায়েল। ওই দুই কর্মী পূর্ব জেরুজালেমের বাসিন্দা। জেরুজালেম থেকে ফিলিস্তিনিদের সরিয়ে দেয়ার উদ্যোগের প্রথম থেকেই বিরোধিতা করছিলেন তিনি। পুলিশের অভিযোগ, পূর্ব জেরুসালেমের বাসিন্দা মুনা এবং মোহাম্মেদ এল কুর্দ দাঙ্গায় অংশ নিয়েছিলেন। তাই তাঁদেরকে আটক করা হয়।

পরে বিক্ষোভের মুখে একজনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি ইসরায়েল সরকার ঘোষণা করেছিল, পূর্ব জেরুজালেম থেকে ফিলিস্তিনিদের সরিয়ে দেয়া হবে। ফিলিস্তিনিরা তার তীব্র প্রতিবাদ করেন। বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। তারপরেই শুরু হয় হাঙ্গামা। হামাসের সঙ্গে ইসরায়েলের তীব্র সংঘাত শুরু হয়। জেরুসালেমে ইসরায়েলিদের সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের সংঘর্ষ শুরু হয়। গোড়া থেকেই আন্দোলনের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন মুনা এবং মোহাম্মেদ। মোহাম্মেদ সম্পর্কে মুনার ভাই।

পূর্ব জেরুজালেমের শেখ জারাহ বসতি থেকে উচ্ছেদের প্রতিবাদ করায় ফিলিস্তিনের মানবাধিকার কর্মী মুনাকে প্রথমে আটক করে পুলিশ। এ সময় তার ভাইকেও খোঁজ করতে থাকে পুলিশ। বোনকে ইসরায়েলি সেনারা আটক করেছে, এ খবর পেয়ে মোহাম্মদ আল কুর্দ ইসরাইলি পুলিশের কাছে ধরা দিলে কয়েক ঘণ্টা পর মুনা আল-কুর্দকে ছেড়ে দেয়া হয়।

এর আগে শেখ জারাহতে প্রতিবাদ কর্মসূচির নিউজ সংগ্রহের সময় আলজাজিরার সাংবাদিক জিভারা বুদেইরিকে গ্রেপ্তার করে ইসরাইলের সেনা সদস্যরা। অবশ্য কয়েক ঘণ্টা পরে তাঁকে ছেড়ে দেয়া হয়।

তাঁদের আইনজীবী নাসের ওদেহ জানান, রোনের গ্রেপ্তারের খবরে মোহাম্মদ আল কুর্দ ইসরাইলি পুলিশের কাছে ধরা দেন। সন্তানদের গ্রেপ্তারের বিষয়ে এপিকে নাবিল আল কুর্দ বলেন, তাদের গ্রেপ্তারের কারণ হলো-নিজ বাড়ি ছেড়ে চলে যেতে না চাওয়া।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *